প্যারাসাইট কোরিয়ান মুভি রিভিউ Review of South Korean movie Parasite

- Advertisement -

 

প্যারাসাইট কোরিয়ান মুভি রিভিউ

Leave a Comment / box-office-collection, korean-movie, movie-review, Parasite-Movie-Bangla Review of South Korean movie Parasite

Review of South Korean movie Parasite

https://upayapps.com/driving-license-in-bangladesh/

Parasite review – searing satire of a family at war with the rich

Parasite review – searing satire of a familyReview of South Korean movie Parasite

Members of an unemployed family target a wealthy household in Bong Joon-ho’s superbly written, horribly fascinating comedy-drama

In all its delicious cruelty and ingenuity, Bong Joon-ho’s satirical suspense thriller Parasite has arrived in the UK from Korea, having won the Palme d’Or in Cannes last year and dominated the connoisseur conversation from then on – at the expense, rightly or wrongly, of every other non-English-language film.

This really is a horribly fascinating film, brilliantly written, superbly furnished and designed, with a glorious ensemble cast put to work in an elegantly plotted nightmare. Its narrative engine hums with the luxurious smoothness of the Mercedes-Benz that one character is fatefully given the chance to drive. In my original review from Cannes, I wondered if the narrative was a little over-extended, but, on a second viewing, I can see how that amplitude of detail is what gives the film its flavour.

Parasite is a scabrous black comedy-slash-farce that resonates beyond its generic limits – a movie about status envy, aspiration, materialism, the patriarchal family unit and the idea of having (or leasing) servants. More than this, it is about the suppressed horror of the overclass for its underlings and its morbid distaste for the smell of people who have to use public transport. The satirical reflex extends to a vision of South and North Korea living together in paranoid, resentful intimacy, and its climax is precipitated by an almost Biblical climate-emergency catastrophe.

Review of South Korean movie Parasite

The parasites in question are a dodgy unemployed family living together in a scuzzy, stinky basement flat, with the teenage son and daughter periodically roaming around, holding their smartphones up to the ceiling to pinch the non-password-protected wifi of neighbours and nearby businesses. The dad is Ki-taek (a lovely performance from veteran player Song Kang-ho), a laidback loafer married to former track star Chung-sook (Chang Hyae-jin). The son is Ki-woo (Choi Woo-sik), a shiftless young guy who has flunked the university entrance exams; and the daughter is Ki-jung (Park So-dam), a smart, cool customer with an artistic gift for web-based fraud Review of South Korean movie Parasite

One summer, by posing as a college student, Ki-woo gets the chance to tutor the teenage daughter of a very rich family in a spectacularly grand modernist house, owned by business high-flier Mr Park (Lee Sun-kyun). Ki-woo’s student is the demure Da-hye (Jung Ji-so), whose instant crush on him is something Ki-woo does nothing to discourage. The somewhat distraite mistress of the house, Yeon-kyo (Cho Yeo-jeong), asks if this smart young man might also recommend an art tutor for Da-hye’s negligibly talented kid brother Da-song (Jung Hyun-jun). He passes off his sister as the cousin of a friend and her brazen grifter-sense of when and how to be confident, and even arrogant, bags her the job. Review of South Korean movie Parasite

Soon, these wicked kids have cunningly contrived to get the family chauffeur fired and replaced with their dad. They then dislodge the housekeeper Moon-gwang (Lee Jeong-eun) and install their placidly smiling mum. A whole family of cuckoos in a brand new nest, pretending to be strangers to each other. But then the artless little kid points out that they all smell alike – and they smell of poor people.

Parasite is a movie that taps into a rich cinematic tradition of unreliable servants with an intimate knowledge of their employers, an intimacy that easily, and inevitably, congeals into hostility. Joseph Losey’s The Servant invokes a comparable transgression, nightmarishly amplified here by the subterfuge and by the sheer numbers of people getting up close and personal. Review of South Korean movie Parasite

Parasite reviewReview of South Korean movie Parasite

Parasite is also in a Korean tradition of pictures such as Kim Ki-young’s classic thriller The Housemaid from 1960, remade in 2010 by Im Sang-soo, and also Park Chan-wook’s servant-class con-trick drama, The Handmaiden. A second viewing of this film also put me in mind of the claustrophobic horror in Park’s Oldboy.

And there is something else, too. The Park family love to play Handel on the music system in their lovely home – the Spietati, io vi giurai aria from his opera Rodelinde. It is so expansive, so airy, caressingly sumptuous and wealthy, and not a million miles from the Care selve arioso from Handel’s Atalanta – listened to by the smug wealthy couple in Michael Haneke’s home-invasion horror Funny Games, before their own appointment with dark destiny.

The home invaders here gaze on their super-rich employers and see themselves in a distorting mirror that pitilessly reveals to them how wretched they are and shows them what could and should be theirs. It is almost a supernatural or sci-fi story: the invasion of the lifestyle snatchers. Parasite gets its toxic tendrils into your skin.

শিখর ছুঁয়েছে শিকড়ের জোরে

প্যারাসাইট
পরিচালনা: বং জুন-হো
অভিনয়: সং কাং-হো, চো উ-শিক, পার্ক সু-দান
৮/১০

গন্ডা দশেক পুরস্কার। তার উপর ছ’খানা অস্কার নমিনেশন। ঠিক কতটা আন্তর্জাতিক হয়ে উঠতে পারলে একটা কোরিয়ান ছবি সর্বস্তরে কুর্নিশ আদায় করে নিতে পারে? আয়রনিটা এখানেই যে, পরিচালক

বং জুন-হো অন্যান্য বিদেশি ছবির ধারা অনুকরণ করেননি। নিজের মাটির গল্প বলেছেন। যে গল্পটা সর্বকালীন। যে কোনও দেশের, যে কোনও পটভূমিতে তা বলা যেতে পারত। এটাই ‘প্যারাসাইট’-এর সার্থকতা। Review of South Korean movie Parasite

Table of Contents1 Parasite Korean Movie Review in Bangla1.1 প্যারাসাইট মুভি প্রিমিয়ার এবং মুক্তির .

পরিচালক আদ্যন্ত পারিবারিক গল্প বুনেছেন থ্রিলারের সুতোয়। একটি পরিবারের চার সদস্য। বাবা-মা ও ভাই-বোন। প্রত্যেকেই কাজের খোঁজে, কোনও রকমে দিন গুজরান করে। একদিন পরিবারের ছেলেটির ভাগ্যে একটি টিউশন জোটে। তার পরিবারের বাকিরা সেই উচ্চবিত্ত বাড়িতেই একে একে ঠাঁই খুঁজে নেয়। যেটা অবশ্যই সোজা রাস্তায় হয় না। কিন্তু অভাবের তাড়নায় ‘পরজীবী’ হওয়ার অজুহাত বদলে যায় যুক্তিতে। ওই উচ্চবিত্তের আশ্রয়ে দিব্যি চলতে থাকে তাদের সংসার। কিন্তু একটি রাত সব হিসেবনিকেশ বদলে দেয়। ফের শুরু হয় টিকে থাকার লড়াই।

এই বিষয়ে আরও পড়ুন. প্যারাসাইট মুভি রিভিউ প্যারাসাইট Parasite Movie Review in Bengali parasite

প্যারাসাইট’-এর পোস্টারে অভিনেতাদের চোখে কালো টেপ। ছবিতে তেমন কোনও দৃশ্য নেই। ছবিটা আসলে প্রতীকী। চোখে অদৃশ্য ঠুলি তো আমাদের সকলেরই। যে কারণে একই সমাজে উচ্চবিত্ত-নিম্নবিত্তের অনায়াস সহাবস্থান হয়। উচ্চবিত্ত খুশি হয়, নিম্নবিত্ত তাদের গণ্ডি ডিঙিয়ে অনধিকার চর্চা করছে না বলে। শুধু তাদের গরিবি-গন্ধটাই যা থেকে থেকে ঝাপটা মেরে অস্বস্তি তৈরি করে।

Review of South Korean movie Parasite

কোরিয়ান ছবি সত্যিটা বরাবরই রূঢ় ভাবে দেখায়। যে মাটির তলার ঘরে ওই নিম্নবিত্ত পরিবারটি বাস করে, তা তাদের সামাজিক অবস্থান বোঝানোর জন্য যথেষ্ট। বৃষ্টির জলে সব ভেসে গিয়েছে। প্যান থেকে উঠে আসছে পূতিগন্ধময় জল। তার উপরে উঠে বসে বাড়ির মেয়েটি নিশ্চিন্তির সিগারেট ধরায়। সে জানে, ওটাই ভবিতব্য। যে কারণে দিনের খাবার জুটবে কি না ঠিক নেই, কিন্তু সকলের চিন্তা চোরাই ওয়াই-ফাইয়ের সিগনাল কেন জুটছে না!

এ ছবি রাজনৈতিকও। দক্ষিণ কোরিয়া জাতীয়তাবাদকে গুরুত্ব দিলেও, যুব সম্প্রদায় যে ইংরেজির মোহে কাতর, সে বার্তাও পরিচালক দিয়েছেন। আমেরিকা থেকে কেনা জিনিস নিশ্চয়ই সেরা হবে, এমন ভাবনা সমাজের সব স্তরেই। উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার বৈরিতাও উঠে এসেছে। দু’ঘণ্টা ১৪ মিনিটের ছবির কোনও জায়গা অতিরিক্ত মনে হবে না। সারভাইভালের সঙ্গে থ্রিলারের উপাদান, কাহিনির ভিত ধরে রাখে।

এই সমালোচনায় চরিত্রের নাম-পরিচয় অবান্তর। ‘প্যারাসাইট’ কোরিয়ান ছবির ধারা বজায় রাখলেও, চরিত্রগুলি আমাদের চেনা। এ ছবির গ্রহণযোগ্যতা এর শিকড়েই ন্যস্ত। Review of South Korean movie Parasite

Parasite Korean Movie Review in Bangle

আজকের রিভিউ কোরিয়ান ব্লকবাস্টার সিনেমা ‘Parasite’ নিয়ে । ২০১৮ সালে ‘ভেনম মুভি’ রিলিজ হওয়ার পরে, এডি ব্রক ওরফে ভেনমের মুখে প্যারাসাইট! ডায়লগটি শুনতে আসলে খুবই ভালো লাগত । গতবছর ডিরেক্টর বং জু হোর ডিরেক্ট করা, প্যারাসাইট সিনেমাটি মুক্তির পরেই পুরো বিশ্বে হইচই ফেলে দেয় । যার ফল শ্রুতিতে মাত্র ১১ মিলিয়ন ইউএসডির বিনিময়ে তৈরি এই সিনেমাটি ইতোমধ্যে আয় করে ফেলেছে ১৬৭.৬ মিলিয়ন ইউএস ডলার । যা দক্ষিন কোরিয়ান চলচ্চিত্র হিসেবে ৩য় সর্বোচ্চ।

সিনেমাটির প্রধান চরিত্রে আছেন ‘Memories of Murder‘ ও ‘Taxi Driver‘ খ্যাত অভিনেতা ‘সং কাং হো‘ । অনায়াসেই যাকে কোরিয়ার সেরা দশজন অভিনেতার মধ্যে একজন বলা যায়। প্যারাসাইট এর অর্থ হলো পরজীবী । “যে সকল জীব অন্য জীবের উপর নির্ভরশীল তাদের কে প্যারাসাইট বা পরজীবী বলা হয়।” এই সিনেমা আসলে একটি ধাধার মতো। এই সিনেমায় একটি প্রশ্ন রেখে যায়! কে আসলে প্যারাসাইট, উচ্চবিত্ত না নিম্নবিত্ত পরিবার ? এর উত্তর জানতে হলে আপনাকে অবশ্যই ২০২০ এর অ্যাকাডেমিক অ্যাওয়ার্ড উইনার্স ‘প্যারাসাইট’ সিনেমা দেখতে হবে ।

প্যারাসাইট মুভি প্রিমিয়ার এবং মুক্তির দিন

২০১৯ সালের এই মুভি যা কিনা ৮টি ভিন্ন ভিন্ন ক্যাটাগরিতে অস্কারের জন্য মনোনীত হয়। একটা মুভি ৮টি ক্যাটাগরিতে মনোনীত হয়ে ৪টি অস্কার জিতে নেয়া মানে বিরাট কিছু । অন্যদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম গুলিতে প্যারাসাইটের জয়জয়কার দেখে মুভিটি দেখে এর রিভিউ না লিখে পারলাম না । ‘প্যারাসাইট মুভি’টি Cannes ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে আন্তর্জাতিকভাবে প্রথম প্রদর্শিত হয় এবং জিতে নেয় ‘PALME D’OR’ পদকটি যা কিনা কান এর মোস্ট প্রেস্টিজিয়াস বা সম্মানজনক এওয়ার্ড বলে গণ্য।

পুরো বিশ্বেই বর্তমানে কোরিয়ান মুভির কদর বেশি । বিশেষ করে কোরিয়ানদের সিনেমার গল্প আবহ কিংবা অভিনয় সবই অসাধারণ । অন্যদিকে একের পর এক ব্লকবাস্টার সিনেমা উপহার দিয়ে বিশ্ব কাপিয়ে বাঘা বাঘা সকল আওয়ার্ড হাতিয়ে নিচ্ছে তারা । যার উদাহরণ হিসেবে প্যারাসাইটের কথা বলতে বাধ্য । ৯২তম একাডেমী আওয়ার্ডে ডিসি এর জোকার সিনেমা কে ছাড়িয়ে বেস্ট পিকচার ক্যাটেগরিতে জয় পেয়ে যায় প্যারাসাইট সিনেমাটি । এবার দেখার পালা কোরিয়ানরা নিজেদের এই ধারা এই বছরও চালিয়ে যেতে পারে কিনা । এই বছর কোরিয়ানদের ভরসা ২০১৬ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সুপারহিট সিনেমা ট্রেন টু বুসান ২ : পেনিনসুলা মুভিটি । আগামী মাসে Train To Busan: Peninsula এর Trailer মুক্তি পাবে । Review of South Korean movie Parasite

It results in a gripping yet poignant watch. The ensemble cast enhance the proceedings with superlative performances, especially Song Kang

Parasite (2019) Movie Review

‘Parasite’ ২০১৯ এর কোরিয়ান ডার্ক কমেডি/মিস্ট্রি /ড্রামা সিনেমা। কোরিয়ান ফিল্ম যারা দেখে থাকেন ‘Memories of Murder’ কিংবা ‘Mother’ দেখেননি এমন দর্শক খুব কমই পাওয়া যাবে। এই সকল মুভির পিছনে আছে জাদুকরী ডিরেক্টর ‘বং জু হো’র ডিরেকশন দেয়া এই ফিল্মগুলো প্রায় সকল দেশের মুভি খোরদের পছন্দের লিস্টে অনেক উপরে থাকে । ‘বং জু হো’র নতুন সৃষ্টি এই প্যারাসাইট ফিল্মটি।

কাল মার্কসের মতে, ‘দাস সমাজ থেকেই আসলে শ্রেণিভিত্তিক সমাজের শুরু।’ এরপর ক্রমান্বয়ে সামন্ত সমাজ থেকে পুঁজিবাদী সমাজে শ্রেণিবৈষম্য কেবল বৃদ্ধিই পেয়েছে।

movie review bangla

ক্যাপিটালিজম আর আধুনিক ইকোনমিকস এর মারপ্যাঁচের ফলশ্রুতিতে কবি শেলির সেই বিখ্যাত উক্তিই যেন বার বার সত্যতা দেখিয়ে যাচ্ছে, ‘The rich get richer and the poor get poorer’ মুভিটিতে দুটি পরিবারের অবস্থা দেখিয়ে আসলে পুরো পৃথিবীর অসামঞ্জস্যতাকেই দেখানো হয়েছে।

Though India and ASEAN countries have strong ties to South Korea and … But the South Korean government has also set goals and launched

পিতা কি-তাক, তার স্ত্রী চুং-সুক, ছেলে কি-উ ও মেয়ে কি-জোং কে নিয়ে গঠিত নিম্নবিত্ত কিম পরিবার। যাদের বসবাস মাটির নিচে অর্থাৎ সেমি-বেজমেন্টে এপার্টমেন্টে । যেখানে মদ খেয়ে মাতাল রা এসে জানলার ধারে প্রস্রাব করে, কিংবা কিছুটা বৃষ্টিতেই তলিয়ে যায় পুরো বাসা। যদিও এই চারজনই শারীরিক ভাবে কর্মক্ষম তাও সামগ্রিকভাবে বলা চলে তারা বেকার। Review of South Korean movie Parasite

হঠাৎই ‘কি-উ’ কে তার এক বন্ধু বিশাল ধনী এক পরিবারের মেয়ের টিউটরের চাকরি যোগাড় করে দেয়।

আর সেই পরিবারটি হচ্ছে পার্ক পরিবার৷ পিতা পার্ক ডং-ইক, তার স্ত্রী পার্ক ইওন-জিও, মেয়ে দা-হিয়ে ও ছেলে দা-সং কে নিয়ে গঠিত উচ্চবিত্ত পার্ক পরিবার। যারা সবুজে ঘেরা আলিশান এক বাড়ীতে বাস করে। পার্ক পরিবারের পিতা মি: পার্ক এক আইটি ফার্মের মালিক । অন্যদিকে গৃহিনী মিসেস পার্ক সার্বক্ষণিকই সাথে কেয়ার টেকার গোয়াং কে রাখেন । তাদের একমাত্র পুত্র দা-সং অজ্ঞাত এক অসুখে ভিন্ন এক ফ্যান্টাসি তে থাকে।

গরিব কিম পরিবারের পুত্র ‘কি-উ’, উচ্চবিত্ত পার্ক পরিবারের মেয়েকে প্রাইভেট পড়ানোর চাকরী তো পায়ই । সেই সাথে বুদ্ধিকৌশলে মিসেস পার্ক কে তার শিশু ছেলের প্রাইভেটের জন্য নিজের বোনের চাকরী নিশ্চিত করে ও ফেলে । অবশ্যই বোনের অন্য পরিচয় দিয়ে কিম পরিবারের কাছে পরিচয় করিয়ে দেয় । এরপরে তারা দুইভাইবোন ষড়যন্ত্র করে একে একে কিম পরিবারে চাকরিরত তাদের ড্রাইভার ও কেয়ারটেকার কেও কাজ থেকে বহিস্কার করে দেয়।

McMaster is pushing something known inside the White House as a “bloody nose” strategy of responding to a North Korean provocation with a set of

এবং সেই জায়গায় দুই ভাই বোনে যথাক্রমে তাদের বাবা মি:কিম ও তাদের মা মিসেস কিম কে চাকরী যোগাড় করে দেয়। এর ফলে দেখা যায় যে পুরো কিম পরিবারের আয়ের উৎস হয়ে দাড়ায় উচ্চবিত্ত পার্ক পরিবার। এভাবেই পরজীবি হয়ে উঠে দরিদ্র কিম পরিবার। কিন্তু কিম পরিবার কি আসলেই পরজীবী ?

এর উত্তরটা দিতে ডিরেক্টর সাহেব অনেক চালাকচতুরি করেছে । সিনেমা যখন শেষ হবে তখন আপনি দ্বিধাদ্বন্দ্ব এর মাঝে পড়ে যাবেন ।

আপাতদৃষ্টিতে আপনার মনে হতে পারে যে ‘কি-উ’ দের গরিব পরিবারই পার্কদের পরিবারের জন্য প্যারাসাইট কিংবা পরজীবি। কিন্তু আসলে সেটা নয়! কেন?

Review of South Korean movie Parasite

‘কি-উ’ পরিবার নিজেদের ভাগ্য ফেরানোর তাগিদে মিথ্যে অভিনয়, ষড়যন্ত্র , প্রতারণা করতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা বোধ হয়নি তাদের। কিন্তু সবকিছু ঠিকঠাক থাকলেও হঠাৎ এক রাতে সব পরিকল্পনায় ব্যাঘাত আসে। সিনেমার শেষদিকে হাজির হয় এক ভয়াবহ টুইস্ট। যা আপনাকে দেখাবে বিন্দু বিন্দু করে জমতে থাকা আক্রোশ, কিভাবে রূপ নিয়ে নেয়ে এক নির্মমতায়।

পরিচালক এমন ভাবে মুভিটি উপস্থাপন করেছেন যে, আপনি এতে প্রথম দিককার কমেডি গুলোয় যেমন বিনোদন পাবেন তেমনই শেষের কিছু কিছু দৃশ্য গুলো মুভি শেষ হওয়ার পরে আপনাকে অবশ্যই ভাবাবে। আপনি মুভিটি শেষ হওয়ার পরে উপলব্ধি করতে পারবেন যে, দেশটা কোরিয়া হলেও এ তো আপনার নিজ দেশেরই বাস্তবিক কাহিনী । এমন কি পৃথিবীর প্রতিটা দেশেরই।

যে বৃষ্টি উচ্চবিত্ত পরিবার ড্রয়িং রুমে বসে দেখে উপভোগ করে, সেই একই বৃষ্টি নিম্নবিত্ত লোকেদের জন্য নিয়ে আসে বাচামরার পরিস্থিতি । সেই বৃষ্টিতেই ডুবে যায় নিম্নবিত্তদের ঘরবাড়ী কিংবা বেজমেন্টে থাকা নিম্নবিত্তের পুরো বাসা।

মানুষের এই শ্রেনী-দন্দ্বের ফলে গরিবদের গায়ে থাকা গন্ধ ও অসহ্যকর মনে হয় উচ্চবিত্ত লোকেদের।

এমন কি নিম্নবিত্ত লোকেদের ছোঁয়া কোন বস্তু ধরতেও তারা দ্বিধা করে । আপনি যদি মুভির পোস্টার ভালো করে লক্ষ করেন তাহলে দেখবেন যে, মুভিটির পোস্টারের মাধ্যমেই পরিচালক বুঝিয়ে দিয়েছেন কৃত্রিমতায় তৈরি মানুষের মাঝে এ পার্থক্যকে।

কিন্তু সত্যিকার অর্থে পরজীবি আসলে কারা? যারা নিজেদের সাধারণ চাহিদা পূরণের জন্য কিছুটা লোলুপ তারাই নাকি যারা নিজের নিরাপদ অভিজাত জীবনের বাইরে সাধারণ মানুষের অসহায়ত্ব সম্পর্কে এতটাই অজ্ঞ যে অসহায় মানুষের শরিরের সামান্য দুর্গন্ধ তাদের সহ্যের বাইরে তারা?

hollywood movie review in bangla

এরকম গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উদ্রেক করেছে এই ফিল্মটি। কোরিয়ান ফিল্মের স্টোরিলাইন,সিনেমাটোগ্রাফি নিয়ে আসলে নতুন করে বলার কিছু নেই। এককথায় অসাধারণ। আর অভিনয়ে প্রধান চরিত্রে আছেন ‘Memories of Murder’, ‘Taxi Driver’, ‘Sympathy for Mr.Vengeance’ খ্যাত অভিনেতা সং কাং হো। অনায়াসেই তাকে কোরিয়ার সেরা দশজন অভিনেতার মধ্যে একজন বলা চলে। এখানেও তার ধারাবাহিকতায় অসাধারণ অভিনয় করেছেন।

এক নজরে প্যারাসাইট মুভি রিভিউ

Movie Name: Parasite (2019 film)

Movie Premier: 21 May 2019 ( Cannes )

Release Date: 30 May 2019 (South Korea)

Language: Korean / English (একাধিক ভাষায় ডাবিং করা হয়েছে )

Movie Budget: US$11.4 million

Cast: Song Kang-ho , Lee Sun-kyun , Cho Yeo-jeong , Choi Woo-shik , Park So-dam , Lee Jung-eun , Jang Hye-jin

Director: Bong Joon-ho

Producer: Kwak Sin-ae, Moon Yang-kwon এবং Jang Young-hwan এর পাশাপাশি প্যারাসাইট এর ডিরেক্টর Bong Joon-ho নিজেও এই চলচিত্রের প্রযোজনা করেছে ।

Personal Rating: 5 / 5

Reviewer: MD: Ashikur Rahman

Review Date: 11 April 2020

Review Ratings: 4 / 5

Rotten Tomato: Parasite (2019) on Rotten Tomatoes

IMDB: Parasite on IMDb

কোরিয়ান ব্লকবাস্টার সিনেমা ‘Parasite’ মুভি রিভিউ । প্যারাসাইট একটি আলোর মত অন্ধকার সমাজের গল্প – reviewhax । প্যারাসাইট মুভি রিভিউ

প্যারাসাইট ডাওনলোড লিংক

WIKIPEDIA: Parasite in Wikipedia

প্যারাসাইট টিভি সিরিজ

ডিরেক্টর Bong Joon-ho এর অধীনে ফেব্রুয়ারিতে প্যারাসাইটের একটি লিমিটেড টিভি সিরিজ তৈরির ঘোষণা দেওয়া হয় ‘গেম অফ থ্রোন্স’ খ্যাত টিভি চ্যানেল ‘এইচবিও’ এর পক্ষ হতে । এই সিরিজে অভিনয়ের জন্য আভেঞ্জার্স: এন্ডগেমের স্মার্ট হাল্কখ্যাত অভিনেতা মার্ক রাফালো ও Tilda Swinton কে বিবেচনা করা হচ্ছে বলে খবর প্রকাশিত হয়েছে ।

Review of South Korean movie Parasite

প্যারাসাইট মুভি বক্স অফিস কালেকশন রিপোর্ট

১৫ মার্চ ২০২০ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় Parasite প্রায় $53.48 million ডলার বক্স অফিস কালেকশন করে । এছাড়াও অন্যান্য দেশে আরোও $213.5 million ডলার (যার মধ্যে $71.19 million ডলার শুধুমাত্র South Korea থেকে ) আয় হয়েছে । যার ফলে প্যারাসাইট সিনেমার পুরো বিশ্বব্যাপী বক্স অফিস কালেকশন হয়েছে $266.9 million ডলার ।

# ডমেস্টিক :- $53.48 মিলিয়ন ডলার

★ ওভারসীস :- $213.5 মিলিয়ন ডলার

★ টোটাল ওয়ার্ল্ড ওয়াইড গ্রোস:- $266.9 মিলিয়ন ডলার

★ মুভি বাজেট:- $11.4 মিলিয়ন ডলার

★ কোরিয়ান মার্কেট কালেকশন:- $71.19 মিলিয়ন ডলার

অস্কার জিতে নিল কোরিয়ার প্যারাসাইট সিনেমাটি ।

‘কোরিয়ান প্যারাসাইট মুভি রিভিউ’

parasite movie review essay parasite movie short review parasite movie analysis pdf parasite movie review blog parasite full movie parasite cast parasite netflix

Imran Hossainhttps://upayapps.com
Upay Tips Best Tech Website Daily Update I am Imran Hossain I am a professional web developer, and do a variety of things online, from search engine optimization, to Google AdSense services, to content marketing, and more. Blogging is one of the happiest jobs I've ever had, especially the things I learn and know to share with others. I hope blogging is all about new make money online tips, as well as new technology updates, and website issues, SEO topics, and more. Even if you are interested in various things starting from Facebook, YouTube, you are interested. Stay connected with us. Thank you.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Must Read

Teletalk Internet Package

টেলিটক সিমের ইন্টারনেট প্যাকেজ দেখার নিয়ম 2022

36
আমাদের ওয়েবসাইট থেকে Teletalk Internet Package দেখার নিয়ম জেনে নিন। আজকে আপনাদের জন্য টেলিটক প্যাকেজ কেনার নিয়ম এবং টেলিটক প্যাকেজ দেখার নিয়ম সম্পর্কে আমরা বিস্তারিত...
- Advertisment -